An Appeal

January 1, 2021

Iswarchandra Vidyasagar Educational Help Project; Bonkanali, Purulia

www.facebook.com/swapnaloke
Dear donor

For the last 12 years, I have been serving the underprivileged on my own initiative and of course with the tireless cooperation of a few people. Instead of giving all the details of what I have done or how much I have done, let me make a brief summary of it.

Bank info for donations is below.

What we have been doing so far
After working for the last 6 years in the village of ‘Penchara’ in Purulia with my limited funds, I am here to ask you for your help to make a big difference in the lives of the children and people of the Shabor tribe. Having lived in the village named ‘Bonkanali’ in Kenda (Police station) area of Purulia for some time, I have developed a kinship with a very small ‘tola’ (group) of the Shabor tribe. Only 9 families live in this village & 20 heads of children and teenagers. We have made arrangements to admit 14 children and adolescents in our school at the initial stage, excluding the younger children and teenagers above 17 years of age. Most of them didn’t go to school due to various adverse circumstances or have dropped out of school. Later more children can join our school from nearby Shabor tola, up to a total number around 25.

Their livelihood
Most of them do not have sweaters or warm clothes to wear even in the severe winter season of Purulia. Only a few have one or two torn clothes, shorts & no slippers for the feet. We bought woolen caps for everyone from our limited resources; They have been given old woolen clothes donated by some people, which have fitted the size of only a few of them. The staple food is rice with rice starch at 11 in the morning and only rice at 6 in the evening. Everyone is involved in collecting wood from the forest, making brooms, cutting paddy in other people’s land, sifting & thrashing paddy, and cleaning & collecting leftovers from the ceremonial house. A side dish is only available if they could earn on that day. The days they can catch some frogs, snakes, monitor lizards & field rats, they are very happy.

Their dreams and our future plans
I have left the comforts of the city, stayed there & experienced their day to day struggles & fight for existence. I am going to start a school for these boys and girls in January 2021. First of all, they have to be fed. A plate of rice, pulses, vegetables & egg. Fish & meat (chicken) once a week. If a cup of milk can be arranged for them, it would be great. The children here get to drown in the life of deprivation and become addicted to local liquor. In colonial India, the British branded them (Shabor) as a ‘The criminal tribes (having inborn criminal tendencies)’. Even today, they are being plunged into darkness for generations. By working hard as child laborers, they are meeting the minimum necessities of life for a small fee.

I can teach them to read and write. But I can’t feed them without everyone’s help. Even I can’t save them from winter (winter ware) or give them clothes to cover.
Need to make arrangements for the development, exhibition, and sale of hand-made kanthas, hats, brooms, and various works of art. There is an urgent need to make them self-reliant.

They want to learn to play football. Wants to create teams. The hunter spirit is in their blood. If they can learn archery, they will be able to brighten the face of the country.

More dreams and our ultimate goals
There is also a need for work to encourage and financially support them, to bring electricity to the village, or to cultivate the land. However, it is subject to time and cost. The first step is to save children from dying in the darkness of intoxication or malnutrition or without treatment or from the abyss of illiteracy and from being trafficked or into superstition, child marriage, brick kilns, or anywhere else.

They do not associate with outsiders, not even with other castes of Purulia. But even though it took time, they accepted me. They have become close to me. Some more small and big villages (in the neighborhood) and Tola’s children, teenagers want to come to me. Shortly (as soon as possible) we will move forward with the construction of residential dormitories centered on Bonkanali (especially in the villages where no one else has yet reached with the light of knowledge, such as the villages, the tribal children of Tola). Accordingly, we have to gradually increase the scope of work.

Please help us
As per our survey & past experience, we need to continue this project for the next five years.
Approximate expenses to run this project: Presently we don’t need to appoint any teaching & cooking staff, as members of our organization (Swapnaloke), will stay there & give regular classes as well as can cook a meal for the students to run this project. The main expenses are for student’s meals & educational materials. Additional expenses are for clothing and other necessities.
The monthly expenditure for this project will be Rs 15000/- only for 15 students.
We also have a plan to provide new clothes to the students before the Bengali new year & Durga puja. That will cost about Rs. 20,000 in the whole year. If you would like to contribute anything in kinds, that is also welcomed.

You can contribute towards the project in any amounts like Rs 100, 200, 500 per month, if you choose to, you may contribute for the whole year at a time or any amount at any time.

Hopefully, we would be able to raise around Rs 2 Lacs for a year which will cover meals, educational materials, clothing, and other necessities for all 15 students.
How to Donate
All donations are accepted directly to our bank account:
A/C name: Baranagar Swapnaloke For Humanity With Humanity
State Bank of India
A/C number- 31210471482
Cossipore Branch
IFSC: SBIN0002043

 The donors will get our financial statement (Around the month of May) after the completion of each financial year. It will also be uploaded to our website www.swapnaloke.org.in
 We will provide our 80G certificate so you can use it for tax benefit (if needed).
Donor meet: All donors can meet our P.R.O (virtually/physically) every quarter, to get to know about the progress & current situation of the project. We will update our work on our social media page and send the link & photographs to respective donors as per request. Besides, the progress report of this project will be uploaded to our website() as well as social media page.
If any donor wants to visit our Centre physically can directly contact us. Any suggestion, feedback, or idea regarding improving the condition of these students is heartly and thankfully welcomed.

On behalf of ‘Swapnaloke’ & these helpless children,

– JeniyaTalapatra
President, B.S.F.H.W.H

————————-
গত ১২ বছর ধরে নিজ উদ্যোগে এবং স্বল্প কিছু মানুষের ঐকান্তিক সহযোগিতায় আমি সেবামূলক কাজ করে চলেছি। কি করেছি বা কত করেছি তার পরিসংখ্যান এখানে না দিয়ে আপনাদের কাছে আমার যা নিবেদন সেই কথায় বরং আসা যাক।
পুরুলিয়ার পেঁচারা গ্রামে গত ৬ বছর ধরে কাজ করার পর সম্প্রতি আমি শবর জনজাতির শিশু তথা মানুষদের উন্নতিকল্পে ব্রতী হয়েছি। বেশ কিছুদিন পুরুলিয়ার কেন্দা থানা অঞ্চলের বনকানালি গ্রামে বসবাস করার সুবাদে শবর জনজাতির এক খুব ক্ষুদ্র টোলার সাথে আমার আত্মীয়তা গড়ে উঠেছে। এই গ্রামটিতে মাত্র ৯ ঘর লোকের বসবাস। শিশু-কিশোর-কিশোরী মিলিয়ে মাত্র ২০ জন। তার মধ্যে একদম ছোট শিশু ও ১৭ বছরের ঊর্ধ্বে কিশোরদের বাদ দিয়ে প্রাথমিক পর্যায়ে ১৪ জন শিশু, কিশোর-কিশোরীকে আমরা আমাদের স্কুলে ভর্তি নেবার ব্যবস্থা করেছি। এরা প্রত্যেকেই বিভিন্ন প্রতিকূল পরিস্থিতির কারণে স্কুলে যায় না অথবা স্কুলছুট হয়ে গেছে।
এদের বেশীর ভাগের কাছেই পুরুলিয়ার বীভৎস শীতেও গায়ে দেওয়ার মতো সোয়েটার বা গরম জামা কাপড় নেই। একটা বা দুটো ছেঁড়াফাটা জামা, হাফপ্যান্ট আছে। পায়ে দেওয়ার চটি নেই। আমরা সাধ্যমতো সবাইকে উলের টুপি কিনে দিয়েছি; কিছু মানুষের দেওয়া পুরনো উলের জামা ওদের দেওয়া হয়েছে, যা ওদের মাত্র কয়েক জনের মাপের হয়েছে। এখানে খাদ্য বলতে সকাল ১১ টায় ফ্যানভাত আবার সন্ধ্যে ৬ টায় ভাত। প্রত্যেকেই কাঠ সংগ্রহ, ঝাঁটা তৈরি, অন্যের জমিতে ধান কাটা, ধান ঝাড়াই, অনুষ্ঠান বাড়ির এঁটো পাত কুরানোর কাজে যুক্ত থাকে। সুতরাং যেদিন রোজগার হয় সবজি জোটে। ভদ্র সমাজে খাদ্য বলতে যা বোঝায়, যদি তা জোটে তবে ভালো, নয়তো ব্যাঙ, সাপ, গোসাপ, ইঁদুর মেরে-রেঁধে খায় এরা।
আমি শহরের সুখ-স্বাচ্ছন্দ ছেড়ে ওখানেই থাকছি। জানুয়ারি ২০২১ থেকে এই ছেলে মেয়েদের জন্য সেখানে স্কুল চালু করছি। সর্বপ্রথমেই
ওদের খেতে দিতে হবে। একটু ভাত, ডাল, সবজি, ডিম। সপ্তাহে একদিন মাছ, একদিন মাংস। যদি একটু দুধের ব্যবস্থা করা যায়। এখানকার শৈশব ওদের বঞ্চনার জীবন নিয়ে দেশী মদের নেশায় ডুবে যেতে চায়। ব্রিটিশরা পরাধীন ভারতের শবর জনজাতির গায়ে ‘অপরাধপ্রবণ জাতি’ -র তকমা সেঁটে দিয়েছিল। আজও ওরা বংশপরম্পরায় অন্ধকারে তলিয়ে যাচ্ছে।শিশু শ্রমিক হিসাবে কঠোর পরিশ্রম করে সামান্য কিছু পারিশ্রমিকের বিনিময়ে জীবনের ন্যূনতম প্রয়োজনীয়তা মেটাচ্ছে।
আমি ওদের লেখাপড়া শেখাতে পারবো। কিন্তু সবার সাহায্য ছাড়া পেট ভরে খেতে দিতে পারবো না। পারবো না শীতের হাত থেকে বাঁচাতে অথবা লজ্জা ঢাকার মতো পোশাক দিতে।
মাসে মাত্র ১৫০০০/- আমার দরকার নূন্যতম খাবারের ব্যবস্থা করার জন্য। যদি প্রতিমাসে ১৫০ জন মানুষ মাত্র ১০০/- করে অথবা ১০০ জন মানুষ ১৫০/- করে কিংবা মাত্র ১৫ জন মানুষ ১০০০/- করে দেন, তবে ওদের খাওয়া-পুষ্টির ব্যবস্থা করা যায়।
আপনাদের কাছে আমি সাহায্য ভিক্ষে চাইছি। পাশে দাঁড়ান।
এছাড়া আরও বহু কিছু প্রয়োজন। শিক্ষা ও সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য একটি প্রজেক্টর। দাম আনুমানিক ২৫০০০/-।
সবার জন্য জুতো। খরচ আনুমানিক ২৮০০/-।
সবার জন্য বছরে দুবার নতুন জামা কাপড়। খরচ আনুমানিক ৯৮০০/-।
সবার জন্য নতুন গরম জামা। খরচ আনুমানিক ৩৫০০/-।
ওদের হাতে তৈরি কাঁথা এবং টুপি, ঝাঁটা ও বিভিন্ন শিল্পকর্মের বিকাশ সাধন, প্রদর্শনী তথা বিক্রির ব্যবস্থা করতে হবে। ওদের ছোট-বড় নির্বিশেষে স্বনির্ভর করার ব্যবস্থা করাও আশু প্রয়োজন।
ওরা ফুটবল খেলা শিখতে চায়। দল তৈরি করতে চায়। শিকার ওদের রক্তে। ওদের তীরন্দাজি শেখালে ওরা দেশের মুখ উজ্জ্বল করতে পারবে।
গ্রামে কারেন্ট আনা বা চাষাবাদ করার ব্যাপারে ওদের উৎসাহ দান ও আর্থিক সহায়তা করার মতো কাজও আছে। তবে তা সময় ও খরচ সাপেক্ষ। প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে শিশুগুলোকে নেশার অন্ধকারে অথবা অপুষ্টিতে বা বিনা চিকিৎসায় মরার আগে কিংবা অশিক্ষার অতলে আর কুসংস্কার, বাল্যবিবাহ, ইঁটভাটা বা অন্য কোথাও পাচার হওয়ার আগে বাঁচাতে হবে।
ওরা বাইরের লোকের সাথে, এমনকি পুরুলিয়ার অন্যান্য জাতের মানুষের সাথেও মেলামেশা করে না। অথচ সময় লাগলেও ওরা মেনে নিয়েছে আমাকে। সহজ হয়েছে আমার কাছে। আশপাশের আরও কিছু ছোট বড় গ্রাম ও টোলার শিশু, কিশোর-কিশোরীরা এখানে আমার কাছে আসতে চায়। অদূর ভবিষ্যতে(যত শীঘ্র সম্ভব) বনকানালিকে কেন্দ্র করে আবাসিক ছাত্রাবাস গড়ে তোলার মাধ্যমে (বিশেষত, এখনও যেসব শবর গ্রামে অন্য কেউ আলো নিয়ে পৌঁছায়নি, তেমন গ্রামগঞ্জ, টোলার আদিবাসী শৈশব গুলোকে) আলো দেখানোর কাজেই আমরা এগিয়ে চলবো। সেইমতো কাজের পরিধি ক্রমশ আমাদের বাড়াতে হবে।
আপনারা পাশে দাঁড়ান। এই কর্মযজ্ঞকে বিফলে যেতে দেবেন না।
আমাদের সাহায্য করুন—–
(আমি কোনরকম দেশী-বিদেশী সাহায্য/সরকারি তহবিল থেকে টাকা পাই না।) শবর জনজাতির জন্য আরও অনেকেই কাজ করছেন। কিন্তু এই গ্রাম এবং টোলাটি ক্ষুদ্র হওয়ার দরুণ ও এখানে জনসংখ্যা কম বলে এখানে বঞ্চনার অন্ধকার আজও কাটেনি। প্রচারের আলো এসে পৌঁছায়নি।
A/c name: Baranagar Swapnaloke For Humanity With Humanity. State Bank of India. A/C number- 31210471482. Cossipore Branch. IFSC: SBIN0002043.
Phone number:6291597647
বি:দ্র:–শবর জনজাতি সম্বন্ধে আরও জানতে এবং বনকানালি গ্রাম সম্বন্ধে ও সেখানকার মানুষজনের জীবনযাত্রা সম্বন্ধে জানার ব্যাপারে আগ্রহী হলে আমার পরবর্তী লেখাগুলিতে চোখ রাখুন।
একটু সাহায্য আপনাদের থেকে চাইছি, এই পোস্টটিকে আরও শেয়ার করুন; আমার প্রকৃত কাজের জন্য সাহায্য গড়ে তুলুন।

Our Mission & Vision

Our mission is to render services to the deprived children by facilitating their fight against illness, illiteracy & poverty. Basic education, health-care, livelihood avenues should be available to all, irrespective of religion, gender, caste. We like to establish free boarding schools for underprivileged & street children, where the meritorious students can continue to for higher studies, mediocre students can take vocational training after their formal education & those are not meant for the above, they shall learn to be a good human being. We also want to establish charitable health center in the rural area for needy people.

We like too see these underprivileged children wake up and live a healthy, purposeful, and active lives that they can command themselves… free of the shackles of poverty, ill health & illiteracy.

We Need  Your Help 

  • To have a classroom. (Rent: Rs 2,000 per month)
  • A room with 12 chairs & table for regular charitable dispensary. (Approximately Rs 8,000 for chairs & table.)
  • Procure some medical equipment. (Approximately Rs 5,000.)
  • Vocational training & health education teaching aids. (Approximately Rs 10,000.)
  • Appointment of 2 more teachers. (Approximately Rs 10,000 per month as stipend.)
  • Appointment of two medical officers (Doctors – Approx. Rs 2,500 per Doctor per camp.)
  • Procure a land & construction of a school with boarding facilities only for street children & poor children. (Approximately Rs 15,00,000 for land & Rs 1,50,00,000 for constructions.)